সাতকাহন

ক্যানসার প্রতিরোধ করবে যেসব মসলা

Spices that will prevent cancer

আমাদের দেহ ছোট ছোট কোষের মাধ্যমে তৈরি হয়। এই কোষগুলোর নির্দিষ্ট সময় পরপর মৃত্যু ঘটে। তখন পুরনো কোষগুলোর জায়গায় নতুন কোষ তৈরি হয়। কোষগুলো নিয়মমতো বিভাজিত হয়ে নতুন কোষের জন্ম দেয়। যখন এই কোষগুলো কোনো কারণে অনিয়ন্ত্রিতভাবে বাড়তে থাকে, তখন ত্বকের নিচে টিউমার হয়। টিউমার বিনাইন বা ম্যালিগন্যান্ট হতে পারে। এই ম্যালিগন্যান্ট টিউমারকেই ক্যানসার বলে। সাধারণত ক্যানসার হওয়ার নির্দিষ্ট কোনো কারণ খুঁজে পাওয়া না গেলে বলা হয়, বংশগত, পরিবেশগত, জীবনযাপনের ধরন ইত্যাদি বিভিন্ন কারণে ক্যানসার হয়। prevent cancer

বিভিন্ন খাবারে রয়েছে ক্যানসার প্রতিরোধের উপাদান। কিছু মসলা রয়েছে, যা ক্যানসার প্রতিরোধে বেশ সাহায্য করে। prevent cancer

১. হলুদঃ
এটি ক্যানসার প্রতিরোধক হিসেবে অনেকটা রাজার মতোই কাজ করে। এর মধ্যে রয়েছে পলিফেনল কারকুমিন; যা ক্যানসার কোষের বৃদ্ধিতে বাধা দেয়। বিশেষ করে প্রোস্টেট ক্যানসার, স্তন ক্যানসার, মস্তিষ্কের টিউমার, লিউকেমিয়া ইত্যাদি। এটি নিরাপদভাবে ক্যানসার তৈরির কোষগুলোকে সরিয়ে দিয়ে স্বাস্থ্যকর কোষ তৈরিতে সাহায্য করে।

২. মৌরিঃ
এর মধ্যে রয়েছে ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। ক্যানসার কোষের সঙ্গে যুদ্ধ করতে বেশ কার্যকরী এটি। এর মধ্যে রয়েছে এনথল, যা ক্যানসার কোষ বৃদ্ধি বন্ধ করতে ভূমিকা রাখে, ক্যানসারের এনজাইম কার্যক্রমকে নিয়ন্ত্রণ করে। মৌরি দিয়ে তৈরি টমেটোর স্যুপ একটি চমৎকার উপাদেয় খাবার। এ ছাড়া ভাজা মৌরিও অনেক উপকারী।
আরও পড়ুন: যে ৭টি খাবার নববিবাহিত নারীদের অবশ্যই খাওয়া উচিৎআরও পড়ুন: মৌসুমি খুসখুসে কাশি দূর করার ঘরোয়া উপায়৩. জাফরানঃ
জাফরানে রয়েছে প্রাকৃতিক ক্যারোটিনয়েড ডাইকাবোর্ক্সিল এসিড, যাকে ক্রোসিটিন বলা হয়। এটি ক্যানসার তৈরির উপাদানের সঙ্গে লড়াই করে। জাফরান কেবল ক্যানসারের উপাদান তৈরি ব্যাহত করে না, পাশাপাশি টিউমারের পরিমাণকেও কমায়। যার ফলে বিশ্বব্যাপী এর দাম বেশি। ২৫ লাখ ফুল থেকে কেবল আধা কিলো জাফরনই পাওয়া যায়।

৪. জিরাঃ
জিরা অত্যন্ত স্বাস্থ্যকর একটি উপাদান। এর মধ্যে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান। এর মধ্যে আছে থাইমোকিউন; যা প্রোস্টেট ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে। বিভিন্ন খাবারের মধ্যে আপনি ব্যবহার করতে পারেন জিরা।

৫. দারুচিনিঃ
গবেষণায় বলা হয়, প্রতিদিন আধা চা চামচ দারুচিনি গুঁড়া খেলে ক্যানসারের ঝুঁকি অনেকটাই কমে যায়। এর মধ্যে রয়েছে আয়রন ও ক্যালসিয়াম, যা টিউমারের বৃদ্ধিকে ব্যাহত করে। চায়ের মধ্যে দারুচিনি ব্যবহার করতে পারেন। দুধের সঙ্গে এটা খাওয়া যেতে পারে। আর রান্নায় তো অবশ্যই ব্যবহার করতে পারেন দারুচিনি। prevent cancer

৬. অরিগেনোঃ
বেশির ভাগ পিৎজা এবং পাস্তায় স্বাদ এবং সৌন্দর্য বাড়াতে অরিগেনো ব্যবহার করা হয়। এটি প্রোস্টেট ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করতে অন্যতম একটি মসলা। এর মধ্যে রয়েছে অ্যান্টিমাইক্রোব্যাল উপাদান। এটি ম্যালিগন্যান্ট কোষের বৃদ্ধি ব্যাহত করে।

৭. লাল মরিচঃ
লাল মরিচে রয়েছে অ্যান্টি ক্যানসার উপাদান। এটি ক্যানসার কোষ বৃদ্ধি ব্যাহত করে এবং লিউকোমিয়ার টিউমার কোষকে ছোট করে দেয়।
আরও পড়ুন: একটানা চেয়ারে বসে কাজ? পিঠ ব্যথা রোধে ৮টি করণীয় টিপস !আরও পড়ুন: ইমার্জেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিল ব্যবহার করছেন? জানেন কি ভুল করছেন?৮. আদাঃ
আদা কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে। বিপাক ক্ষমতাকে বাড়ায় এবং ক্যানসার কোষকে মেরে ফেলতে সাহায্য করে।

এ ছাড়া ক্যানসারের উপাদান তৈরি প্রতিরোধে আরো কিছু খাবার সামান্য পরিমাণ কাজ করে। যেমন : রসুন, পুদিনা পাতা ভারজিন অলিভি, ভিনেগার, অ্যাভাকোডা ইত্যাদি। prevent cancer

Comments

Please comments

Copyright © 2016 BanglaMag.

শীর্ষে