সাতকাহন

প্রাথমিক চিকিৎসায় টুথপেস্টের অবিশ্বাস্য ব্যবহার জেনে নিন

Use of toothpaste in primary treatment

আধুনিকতার এই যুগে নিজেকে পরিপাটি করতে প্রতিদিন সকালে প্রয়োজন হয় টুথপেস্টের। আপনার সুন্দর ঝকঝকে দাঁতকে নিয়মিত সেবা দেয়া তার কাজ। তবে, শুধু দাঁতের যত্ন নিয়েই টুথপেস্টের গুণ খ্যান্ত থাকে না। ব্যবহার জানলে টুথপেস্ট ছোটখাটো দুর্ঘটনাকেও মোকাবেলা করতে সক্ষম। নানা সমস্যায় কার্যকরী সমাধান হতে পারে প্রতিদিনের সঙ্গী টুথপেস্ট। Use of toothpaste

তাই আসুন জেনে নেয়া যাক টুথপেস্টের কার্যকরী ঘরোয়া চিকিৎসা সম্পর্কে। Use of toothpaste

পোকার কামড়ঃ
পিঁপড়া থেকে শুরু করে যেকোনো পোকার কামড়ে টুথপেস্ট বেশ কাজে দেয়। আক্রান্ত জায়গায় টুথপেস্টের প্রলেপ লাগিয়ে দিন। তাৎক্ষণিক ভাবে ব্যথার উপশমের সঙ্গে ফোলা বা চুলকানি কমে যাবে খুব দ্রুত।
আরও পড়ুন: দাঁতের হলুদ দাগ দূর করার সহজ উপায় জেনে নিনআরও পড়ুন: এই বিপজ্জনক অভ্যাসগুলি কি আপনার আছে? বাঁচতে চাইলে এখনই সাবধান হনআগুনের ছ্যাঁকাঃ
একটু বেখেয়াল নতুন বা অভিজ্ঞ রাঁধুনীকে মানে না, হাত পুড়িয়ে তবে ছাড়ে। আগুন বা গরম জিনিসের ছ্যাঁকা লাগলে অথবা গরম বাষ্পের ভাঁপ লাগলে সঙ্গে সঙ্গে জায়গাটিতে টুথপেস্টের প্রলেপ লাগিয়ে দিন। জ্বালাপোড়া মুহূর্তেই ঠিক হয়ে যাবে। তবে বেশি পুড়ে গেলে অবশ্যেই অনেক করে পানি ঢালতে হবে এবং ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

গলা ব্যথাঃ
সাইনোসাইটিসের কারণে অনেকে প্রায়ই গালের ব্যথায় ভুগে থাকেন। ব্যথার স্থানে পুরু করে টুথপেস্টের প্রলেপ দিলে ব্যথা ধীরে ধীরে কমে যাবে।

শ্বাসকষ্টঃ
অ্যালার্জিতে আক্রান্ত হলে বা ঠাণ্ডা লেগে গিয়ে অনেকেরই নাক বন্ধ হয়ে যায়। আবার অনেকেই শ্বাসকষ্টের কারণে নিঃশ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা অনুভব করেন। এমনটি হলে নাকের ওপরে, দুপাশে ও নাকের ছিদ্র ঘিরে টুথপেস্ট লাগান। বন্ধ নাক খুলে যাবে, শ্বাসকষ্ট দূর হয়ে যাবে নিমেষেই।
আরও পড়ুন: প্রাকৃতিক উপায়ে চুলের রুক্ষতা দূর !আরও পড়ুন: মানবদেহের হাড়কে সুগঠিত করতে সাহায্য করে ”দই” !ব্রণ দূরঃ
ব্রণ এমন একটি সমস্যা যাতে কমবেশি সবাই ভুগে থাকেন। কখনো প্রচণ্ড ব্যথাও হয়ে থাকে। মুখে ব্রণ হলে তার ওপর ও চারপাশে টুথপেস্টের প্রলেপ লাগিয়ে রাখুন। ব্রণের ব্যথা ও ফোলা দুই-ই কমে যাবে। Use of toothpaste

Comments

Please comments

Copyright © 2016 BanglaMag.

শীর্ষে