স্বাস্থ্য

২৪ ঘণ্টায় ক্যানসারের জীবাণু ধ্বংস করবে আঙুরের বীজ

cure for cancer

ক্যানসারের চিকিৎসার একটি জনপ্রিয় ও অতি প্রচলিত পদ্ধতির কেমোথেরাপি। সম্প্রতি এর ক্ষতিকর দিকগুলো প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ মেডিকেল সাময়িকী, কেমোথেরাপি মানুষকে সুস্থ করার চেয়ে দিনে দিনে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়। এ পদ্ধতি গ্রহণ করে কয়েক দশক ধরে অনেকে মানুষ মারা গেছেন। আপনিও হয়তো ভাবেননি কেমোথেরাপি এতটা বিপজ্জনক। cure for cancer

ঔষধ, চিকিৎসা ও ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের কাজ মানুষকে বাঁচানো, মেরে ফেলা নয়। তাই এর জন্য নতুন করে ভাবতে হবে।

ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার মেডিসিন ও ফিজিওলজি বিভাগের জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক চিকিৎসক হার্ডিন বি জোনস তার এক গবেষণায় খুঁজে পেয়েছেন, “কেমোথেরাপি আদৌ কাজ করে না”। ক্যানসার চিকিৎসা করানো রোগীদের আয়ু নিয়ে ২৫ বছর ধরে গবেষণা করে তিনি এ তথ্য খুঁজে পেয়েছেন। চিকিৎসক জোনস দাবি করেছেন, যেসব রোগী কেমোথেরাপি নেন, তারা ব্যথায় মারা যান। অন্য কোনো চিকিৎসা পদ্ধতির চেয়ে কেমোথেরাপি নেওয়া রোগীরা দ্রুত মারা যান।cure for cancer

কিন্তু ক্যানসার চিকিৎসার জন্য সবচেয়ে ভাল প্রতিকার আছে প্রাকৃতিতে। প্রাকৃতিক এইসকল ঔষধগুলি যেমন কার্যকরী ও তেমন কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই বললেই চলে। অথচ এ প্রাকৃতিক প্রতিকারের পদ্ধতিকে আমারা প্রতিনিয়ত অবহেলা করে চলেছি। এমন কি যেটুকু জানি তার সদ্ব্যবহার করি না এবং এই চিকিৎসা পদ্ধতিগুলো কখনও প্রচার মাধ্যমে আসে না। কিন্তু বিশ্বের মানুষের স্বার্থে এগুলো সকরের সামনে তুলে ধরা খুবই জরুরি।

আরও পড়ুন: শরীরের স্ট্রেচ মার্ক দূর করার ঘরোয়া সমাধান আরও পড়ুন: ত্বকের কালচে ভাব দূর করার গৃহস্থালি উপায়

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্টাকি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক দীর্ঘদিন ধরে প্রকৃতির কোলে ক্যানসারের প্রতিকার খুঁজছেন। অবশেষে তারা তা পেয়েছেন আঙুরের বীজে। তারা খুঁজে পেয়েছেন যে আঙুরের বীজ ৭৬ শতাংশ লিউকেমিয়া ও ক্যানসার কোষ ধ্বংস করে। বৈজ্ঞানিক পরীক্ষাগারও এটা সমর্থন করেছে। এ প্রাকৃতিক প্রতিকারের উপাদান মাত্র ২৪ ঘণ্টায় ক্যানসার কোষ ধ্বংস করা সম্ভব। ক্যানসারে আক্রান্ত রোগীর আরোগ্য লাভের জন্যও এটার ব্যবহার বেশ কাজে দেয়। cure for cancer

পরে গবষেণাটি আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর ক্যানসার রিসার্চ সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়। এতে দেখা গেছে, আঙুরের বীজে থাকা উপাদান লিউকেমিয়া কোষকে ধ্বংস করে। আঙুরের বীজে “জেএনকে” নামের এক ধরনের প্রোটিন থাকে যা ক্যানসারের জন্য দায়ী কোষগুলোকে দ্রুত ধ্বংস করে দেয়।

আরও পড়ুন: সুন্দর মসৃন ত্বকের জন্য ফলের ৫টি টোনার আরও পড়ুন: স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে ঘরোয়া সমাধান

গবেষকরা জানান, ক্যানসার চিকিৎসা দেওয়া হয় এমন প্রতিষ্ঠানগুলো এ রোগকে কীভাবে দুরারোগ্য ব্যধি হিসেবে প্রমাণ করা যায় তা নিয়ে চেঁচামেচি করছে। তারা মানুষের মধ্যে ভয় ও আতঙ্ক ছড়িয়ে দিচ্ছে যে, ক্যানসার মৃত্যুর সমান রোগ। তবে এ গবেষণা সমর্থন করেছে, যতটা ভাবি, ততটা বিপজ্জনক রোগ নয় ক্যানসার। আমরা যদি সঠিক পস্থায় ও গুরুত্ব দিয়ে ঠিক চিকিৎসা নিই, তাহলে মৃত্যুর মধ্যে দিয়ে জীবন শেষ হবে না। cure for cancer

এর আগে ব্রিটিশ ও ইসরায়েলের গবেষকরা জানান, মানুষ ক্যানসারে নয়, মরে কেমোথেরাপিতে। নতুন এ গবেষণা তাদেরই সমর্থন করল।

Comments

Please comments

Copyright © 2016 BanglaMag.

শীর্ষে